Wednesday, July 17, 2024

অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম ২০২৪ | পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক

অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম

অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম ২০২৪

বর্তমানে ডিজিটাল যুগে পাসপোর্ট চেক করা খুব সহজ হয়ে গেছে। শুধুমাত্র একটি ক্লিকের মাধ্যমে যে কেউ সহজেই তাদের অনলাইনে পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক করতে পারবেন।

পাসপোর্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য পাসপোর্ট প্রয়োজন । কারণ পাসপোর্ট  সবার পরিচয় এবং জাতীয়তা যাচাই করে। পাসপোর্ট বিদেশী ভূমিতে নিরাপদ উত্তরণ এবং সুরক্ষা প্রদান করে। 

ভ্রমণের সময় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল পাসপোর্ট।কারন  বিমানবন্দরে একাধিকবার ভ্রমনকারীদের  তাদের পাসপোর্ট দেখাতে হয়।

পাসপোর্ট যে শুধুমাত্র বিমানবন্দরে দেখাতে হবে তা না, পাসপোর্ট হোটেল এবং আরও অনেক জায়গায় দেখাতে হবে যেখানে আপনাকে  যাচাইকৃত পরিচয় দেখাতে হয়।

তাই আপনার  পাসপোর্টটি মেয়াদ এখনো আছে কি না তা পরীক্ষা করা দরকার। তার জন্য আমরা আজকের পোস্টে কিভাবে অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করা যায় বা পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করব।

পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম ২০২৪

উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে, অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করা সহজ এবং সহজতর হয়েছে। তবে, আপনি SMS এর মাধ্যমেও অনলাইন পাসপোর্ট চেকও  করতে পারেন। 

এমআরপি পাসপোর্ট চেক অনলাইন

এই পোস্টে  আপনার সুবিধার জন্য অনলাইন পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম সম্পর্কে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। সমস্ত পদ্ধতি অন্তর্ভুক্ত করা হবে যাতে আপনি কোনও গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা মিস  না করেন।

পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক 2024

একটি ভিন্ন দেশে ভ্রমণ করার জন্য, আপনার একটি পাসপোর্ট থাকতে হবে। এটি একজনের পরিচয় এবং জাতীয়তার উপর নির্ভর করে যাচাই করা হয়। অতএব, আপনি যদি পাসপোর্টের জন্য একজন নতুন আবেদনকারী হন এবং আপনার নতুন পাসপোর্টের জন্য অপেক্ষা করেন, তাহলে আপনি সহজেই অনলাইনে আপনার পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক করতে পারবেন।অনলাইনে পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক করার পদ্ধতি খুবই সহজ।

আপনি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ( www.passport.gov.bd ) এ গিয়ে আপনার পাসপোর্টের স্থিতি পরীক্ষা করতে পারেন । সেখানে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট দেখার পরে, আপনি সহজেই অনলাইন পাসপোর্ট চেক সম্পূর্ণ করতে পারেন এবং আপনার পাসপোর্টের স্ট্যাটাস খুঁজে পেতে পারেন।

তাছাড়া, আপনি যখন অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যাবেন তখন আপনাকে পাসপোর্ট থেকে প্রাপ্ত ডেলিভারি স্লিপ থেকে আপনার আবেদন আইডি লিখতে হবে।

এছাড়াও, আপনি যদি অনলাইনে আবেদন করে থাকেন তবে আপনি ডেলিভারি স্লিপ থেকে আবেদন আইডির পরিবর্তে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করতে পারেন।

আরও পড়ুন: আমেরিকা যাওয়ার সহজ উপায়

অনলাইন রেজিস্ট্রেশন নম্বর বা অ্যাপ্লিকেশন আইডি দেয়ার পর আপনাকে আপনার জন্ম তারিখ ইনপুট করতে হবে। তাহলে আপনি আপনার পাসপোর্ট প্রস্তুত কিনা তা  যানতে পারবেন।


অনলাইনে ই-পাসপোর্ট চেক করুন

পাসপোর্ট হল একজনের পরিচয় এবং জাতীয়তা যাচাই করার জন্য সরকার কর্তৃক জারি করা একটি আনুষ্ঠানিক নথি। তাই অন্য দেশে যেতে ইচ্ছুক প্রত্যেক নাগরিকের অবশ্যই পাসপোর্ট থাকতে হবে।বর্তমানে কেউ পাসপোর্ট অফিসে না গিয়ে সহজেই তাদের পাসপোর্টের স্থিতি বা বৈধতা পরীক্ষা করতে পারে।
ইন্টারনেটে শুধুমাত্র একটি ক্লিকের মাধ্যমে, যেকেউ সহজেই অনলাইনে তাদের ই-পাসপোর্টের অবস্থা সম্পর্কে আরও জানতে পারবেন। এছাড়াও, ই-পাসপোর্টের জন্য আবেদন প্রক্রিয়াও খুব সহজ।
পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক

উদাহরণস্বরূপ, অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ( www.passport.gov.bd ) দেখুন এবং ePassport পোর্টালের হোম পেজে যান এবং Status Check এ ক্লিক করুন। আপনার পাসপোর্ট আবেদনের অগ্রগতি পরীক্ষা করতে, অ্যাপ্লিকেশন আইডি বা অনলাইন রেজিস্ট্রেশন আইডি এবং জন্ম তারিখ লিখুন। তাছাড়া, আপনার অনলাইন পোর্টাল অ্যাকাউন্টে, আপনি আপনার সমস্ত অ্যাপ্লিকেশনের স্টাটাস পরীক্ষা করতে পারেন।

ই-পাসপোর্ট আবেদনের জন্য নিবন্ধন প্রক্রিয়া খুবই সহজবোধ্য। আপনাকে যা করতে হবে তা হল প্রথমে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিসিট করুন, এর ওয়েবসাইটে দেওয়া পদক্ষেপ গুলি সঠিক ভাবে অনুসরণ করুন এবং সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য যা চাওয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ করুন। সব তথ্য ঠিক থাকলে আপনি কয়েক মিনিটের মধ্যে আবেদন প্রক্রিয়া শেষ করতে পারবেন। আর রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর আপনি কোনো ঝামেলা ছাড়াই আপনার পাসপোর্টের স্ট্যাটাস জানতে পারবেন।


এসএমএসের মাধ্যমে ই-পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক করার নিয়ম

প্রযুক্তির উন্নতি আমাদের জীবনকে অনেক সহজ করে দিয়েছে। আগে, একজনকে তাদের পাসপোর্টের স্ট্যাটাস পরীক্ষা করার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হয়। যেই পদ্ধতিটি খুব বিভ্রান্তিকর এবং সময়সাপেক্ষ ছিল। 
আজকাল, যে কেউ সহজেই এসএমএসের মাধ্যমে তাদের ই-পাসপোর্টের স্ট্যাটাস জানতে পারে এবং অনলাইন পাসপোর্ট চেক সম্পূর্ণ করতে পারে। অনলাইনে এসএমএস এর মাধ্যমে পাসপোর্ট চেক করার পদ্ধতিটি খুব সহজ।
এসএমএস এর মাধ্যমে পাসপোর্ট চেক করার জন্য নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন: 

  • প্রথমে আপনার ফোনের SMS অপশনে যান।
  • নিশ্চিত করুন যে বার্তাটি সঠিকভাবে ফরম্যাট করা হয়েছে। 
  • “MRP (space) EID” নম্বর সঠিকভাবে লিখুন। উদাহরণস্বরূপ, একজন ব্যক্তি যিনি EID নম্বর 2233442 পেয়েছেন। তাকে “MRP 2233442” টাইপ করতে হবে।
  • তারপর 6969 নম্বরে মেসেজ টি  পাঠিয়ে দিন।

অবশেষে, আপনি ফিরতি SMS এর মাধ্যমে পাসপোর্টের স্ট্যাটাস একটি বিজ্ঞপ্তি পাবেন।

পাসপোর্ট ডেলিভারি চেক

এই সমস্ত পদক্ষেপগুলি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে অনুসরণ করার পরে, আপনি আপনার ই-পাসপোর্টের অবস্থা সম্পর্কে জানতে সক্ষম হবেন। এবং আপনি অনলাইন পোর্টালে আপনার ই-পাসপোর্ট বের করতে পাররেন।যেহেতু আপনি আপনার ই-পাসপোর্ট সম্পর্কে জানার জন্য উপরের দুটি মাধ্যম ব্যবহার করতে পারবেন তাই আপনার জন্য যে মাধ্যমটি সহজ তা সেটি বেছে নিতে পারেন৷

ই-পাসপোর্ট এবং এমআরপি পাসপোর্ট এর মধ্যে পার্থক্য কি?

ই-পাসপোর্ট এবং এমআরপি পাসপোর্টের মধ্যে পার্থক্য অনেক, যদিও বা একই রয়েছে।এমআরপি পাসপোর্ট এর মধ্যে প্রথমে দুই পাতার মধ্যে যে তথ্য থাকতো ই-পাসপোর্টের মধ্যে সে তথ্য এখন আর নেই। ই-পাসপোর্ট এর মধ্যে এখন রয়েছে পালিমানের দিয়ে তৈরি একটি কার্ড এবং অ্যান্টেনা। এই কার্ডের ভিতরে একটি  চিপ রয়েছে। এবং পাসপোর্টের চিপের মধ্যে সংরক্ষিত রয়েছে পাসপোর্ট বাহকের সকল তথ্য।

ই-পাসপোর্ট এর ডাটাবেজের মধ্যে রয়েছে পাসপোর্টধারীর তিন ধরনের ছবি, এবং আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের আইরিশ থাকবে। এর ফলে ভ্রমণকারীর সকল পাসপোর্টের তথ্য অনেক সহজেই জানতে পারবে কর্তৃপক্ষ।

আপনার পাসপোর্ট হয়েছে কিনা তা কিভাবে জানবেন


আপনার পাসপোর্ট হয়েছে কিনা তা কিভাবে জানবেন

আপনার পাসপোর্ট আবেদনটি বর্তমানে কোন পর্যায়ে রয়েছে তা জানতে আপনি প্রথমে বাংলাদেশর ই-পাসপোর্ট এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে লগইন করতে হবে। তারপরে পাসপোর্ট এর ওয়েবসাইটে ঢুকে চেক অ্যাপ্লিকেশন স্ট্যাটাস লেখা দেখতে পাবেন (check application status) সেখানে ক্লিক করতে হবে।

পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক

তারপরের পেজটিতে যাওয়ার পর পাসপোর্ট আবেদনের সময় পাওয়া স্লিপের অ্যাপ্লিকেশন আইডি Application ID অথবা আপনি অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করার সময় যে আইডি নম্বরটি পেয়েছেন সেই আইডি নাম্বার দিতে হবে।

আর উপরের দেওয়া সম্পূর্ণ পোস্টটিতে পাসপোর্ট চেক করার নিয়মটি ভালোভাবে দেওয়া রয়েছে আপনি মন দিয়ে পড়ে নিজ থেকে পাসপোর্ট চেক বা ই-পাসপোর্ট চেক করতে পারবেন। ইপাসপোর্ট এবং পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম একিই।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার নিয়ম

ই পাসপোর্ট আবেদনে আপনি কিংবা আঞ্চলিক অফিস যেখান থেকেই ভুল ধরা পড়ুক না কেন, ই পাসপোর্ট আবেদন বতিল করার জন্য সহকারী উপ-পরিচালকের সাথে সাক্ষাৎ করতে হবে।

উপ-পরিচালক বরাবর একটি দরখাস্ত ও অনলাইন আবেদন ফরমের হার্ড কপি এটাচ করে জমা দিলে সাথে সাথেই আপনার ই পাসপোর্ট আবেদন ক্যান্সেল করে দিবে। চলুন তবে ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত লেখার নিয়ম, নমুনা দরখাস্তের সফট কপি দেখে নেওয়া যাক।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

তারিখ:……………….

বরাবর,

সহকারী উপ-পরিচালক

আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস

ময়মনসিংহ।

বিষয়: পাসপোর্ট আবেদন বাতিল প্রসঙ্গে।

জনাব,

বিনীত নিবেদন এই যে, আমি মোঃ ……………………, পিতা:……………………., মাতা: …………………….। আমি গত ……../……./………. তারিখে ই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করি। আমার অনলাইন রেজিঃ আইডি নং OID100380*******। আমার পাসপোর্টে …………… অংশে ভুল থাকায় পাসপোর্ট আবেদনটি বাতিল করতে ইচ্ছুক।

অতএব, জনাবের নিকট আকুল আবেদন এই যে, উপরিউক্ত সমস্যার কথা বিবেচনা করে আমার ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

বিনীত নিবেদক

মোঃ………

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

দিনাজপুর-২১০৪।

শেষ কথা    

আশা করি, এই পোস্ট পরে, আপনি অনলাইন পাসপোর্ট চেক পদ্ধতি সম্পর্কে আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পেয়েছেন। একটি পাসপোর্ট প্রত্যেকের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নথি। এটি মূলত একটি ভিন্ন দেশে একজন নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। আপনি যদি অন্য দেশে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন তবে আপনার যাচাইকরণের জন্য একটি বৈধ পাসপোর্টের প্রয়োজন হবে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular