Thursday, May 30, 2024

বজ্রপাতের সময় করণীয় ও সতর্কতা

বর্তমানে বাংলাদেশের উপর দিয়ে বৃষ্টিবলয় জুই-৩ চলমান। বৃষ্টিবলয় জুই-৩ তীব্র বজ্রপাত যুক্ত ও ঝড়যুক্ত। বলয়টি অলরেডি বিস্তার লাভ করা শুরু করেছে। এই বলয়ে ব্যাপক বজ্রপাত তথা ঠাডা(thunder) পড়ার আশংকা অনেক বেশী। এই ঝড় বেশীরভাগ ক্ষেত্রে দুপুরের পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত, ক্ষেত্রবিশেষে পরের দিন সকালের মাঝে ঘটে থাকে। তাই আপনাদের এ সময়টাতে সতর্কতা জরুরী।

বজ্রপাতের সময় সতর্কতাসমূহঃ

  1.  জমির কাজে দুপুরের আগে আগে করে ফেলার চেষ্টা করুন।
  2.  যদি উত্তর-পশ্চিম বা পশ্চিম দিকে কালো মেঘ দেখেন তাহলে দ্রুত নিরাপদ আশ্রয়স্থলে চলে যান। চেষ্টা করবেন আধাঘন্টা আগে পৌছাতে। জমিতে যারা কাজ করবেন তাদের জন্য এটা একটা স্ট্রং সতর্কবার্তা।
  3.  ঝড়ের কবলে পড়লে গাছের নিচে দাড়াবেন না। কাছাকাছি কোন ঘরে অবস্থান নিবেন।
  4.  যদি আশে পাশে ঘরবাড়ী না থাকে তাহলে, পিচ রাস্তার উপরে উঠবেন।
  5. গাড়ীতে থাকলে গাড়ীতে অবস্থান করবেন। গাড়ী আল্লাহর রহমতে নিরাপদ,তবে দরজা-জানালা বন্ধ করে দিবেন।
  6.  যদি আশেপাশে পিচ রাস্তা না পাওয়া যায় তাহলে, পায়ের আঙ্গুলের উপর ভর করে, মাথা পা কাছাকাছি এনে, অনেকটা ফুটবলের মত হয়ে অবস্থান করবেন। পিচ রাস্তা পেলেও এমনটা করবেন।

বজ্রপাতের সময় করণীয়

  •  কোনভাবেই পানিতে নামবেন না।
  • বজ্রঝড় সাধারণত ১০ থেকে ৩০ মিনিটের মত স্থায়ী হয়। তাই এটুকু সময়ে সাবধানতা অর্জন করুন।
  •  ঝড় থামার পড়ে সম্ভব হলে ২০ মিনিট থেকে আধাঘন্টা নিরাপদ অবস্থানে অবস্থান করুন। কারন এসময় বজ্রমেঘের প্রলম্বিত অংশ তথা এনভিল থেকেও ভাগ্য খারাপ হলে বজ্রপাত হতে পারে। শুরুর দিকে ৩০ মিনিট আগে নিরাপদ স্থানে পৌছানোর কারনও একই।
  • শহরাঞ্চলে অনেকে বৃষ্টি দেখেই ভিজতে নেমে যান, এটা করবেন না। বজ্রঝড়ের সময়ে ছাদে যাওয়াকে হারাম ঘোষনা করুন। মনে রাখবেন, আরামের জন্য জীবন চলে যেতে পারে।

সতর্ক থাকুন, নিরাপদ থাকুন। গুজব এড়াতে নিয়মিত বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর তথা BMD এর নির্দেশনা অনুসরণ করুন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular